About Me

header ads

বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে উত্তর ত্রিপুরা জেলা আইন সেবা কমিটির পদযাত্রা!


বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে উত্তর ত্রিপুরা জেলা আইন সেবা কমিটির পক্ষ থেকে পানিসাগর মহকুমা শহরে এক সচেতনতা মূলক পদযাত্রার আয়োজন করা হয়। উক্ত পদযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন উত্তর ত্রিপুরা জেলা আইন সেবা কর্তৃপক্ষের আইন সেবক সহ অন্যান্যরা।

এবছর বিশ্ব পরিবেশ দিবসের মূল থিম হচ্ছে বায়ু দূষণ থেকে আমাদের পরিবেশকে রক্ষা করা। প্রবল গরম, ভয়ানক ঘূর্ণিঝড় অথবা পাহাড় ধসে যাওয়ার মতো প্রাকৃতিক বিপর্যয় ছাড়াও আমাদের নানা শারীরিক অসুস্থতার নেপথ্যে রয়েছে বায়ু দূষণের কারসাজি। ধূমপানের নেশা না করেও কিংবা বাড়তি নুন না খেয়েও শরীরে একই রকম ক্ষতি হতে পারে এবং তা শুধুমাত্র বায়ু দূষণের কারনে। বিভিন্ন গবেষণা থেকে পরিবেশ বিজ্ঞানীরা এমন প্রমাণ পেয়েছেন। পরীক্ষা নিরীক্ষায় দেখা গেছে ব্রেন স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাক ও ফুসফুস ক্যান্সারে আক্রান্ত এক তৃতীয়াংশ মানুষের রোগের নেপথ্যে রয়েছে বায়ু দূষণ। শহর হোক অথবা গ্রাম প্রচুর পরিমাণে অটো বাইক ও গাড়ি চলার কারণে এর থেকে নিঃসৃত ধোঁয়া আমাদের শরীরের জন্য ভয়ঙ্কর ক্ষতিকর। দূষণ হানায় ছোট বড় কেউই নিরাপদ নয়।

প্রত্যেক বছর বিশ্বের সত্তর লক্ষ মানুষ মারা যাচ্ছেন দূষিত পরিবেশের কারণে। শুধু যে রাস্তার গাড়ির ধোঁয়ায় আমরা অসুস্থ হয়ে পড়ি তা নয়, ঘরের দূষণ অর্থাৎ রান্নার আগুনের ধোঁয়া অথবা কীটনাশকের ব্যবহার এবং রুম ফ্রেশনার থেকেও আমাদের অন্দরমহল দূষিত হয়ে পড়ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে ঘরের মাধ্যমে দূষণের কারণে গুরুতর অসুস্থ হয়ে শিশু ও বয়স্কদের মৃত্যুর হার ক্রমশ বাড়ছে। আজকের এই কর্মসূচির সম্পর্কে বলতে গিয়ে মহকুমা আইনসভা কমিটির মেম্বার সেক্রেটারি রাজা গুপ্তা বলেন বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে আদালত চত্বর ও জেলা হাসপাতাল চত্বরে বৃক্ষরোপণ এর মাধ্যমে সচেতনতা বৃদ্ধি করাই হলো মূল উদ্দেশ্য।

বিশ্ব পরিবেশ দিবসের গুরুত্ব সম্পর্কে বলতে গিয়ে জেলা আইন সেবা কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান তথা ঊনকোটি জেলা বিচারক জে এম মুরাসিং বলেন বিজ্ঞানের অগ্রগতির ফলে প্রতিনিয়তই দূষণের মাত্রা বেড়ে চলছে। এই দূষণের মাত্রা হ্রাস করতে আমাদের সবার এগিয়ে আসতে হবে। শুধুমাত্র একটি দিনে বৃক্ষরোপণ করলেই চলবে না বছরের প্রতিটি তিনি আমাদের সচেতন থাকতে হবে। আমাদের প্রত্যেককে প্রতিটা দিন সচেতন থেকে পৃথিবীকে আরও সুন্দর করে তুলতে হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য