About Me

header ads

শিশু কন্যার মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে এলাকায় শোকের ছায়া!

আবারো নরপিচাশের লালসার শিকারে খালি হয়ে গেলো এক মায়ের কোল। ঘটনায় চাঞ্চল্যের সাথে সাথে শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা ধর্মনগরে। সোমবার রাত থেকেই ধর্মনগর পদ্মপুর এলাকার নিতান্ত গরিব পরিবারের  বছর সাতের এক নাবালিকাকে খোঁজে পাওয়া যাচ্ছিলনা। দির্ঘক্ষন খোঁজাখোঁজির পর মেয়েটির অভিভাবকরা সোমবার মধ্য রাতেই ধর্মনগর মহিলা থানায় একটি মিসিং ডাইরি করেন।

মঙ্গলবার সকাল আনুমানিক ১০টায় ধর্মনগর থানায় খবর আসে হাফলং কারগিল টিলা চা বাগানের একটি ছড়ার ধারে এক নাবালিকার অর্ধনগ্ন দেহ পাওয়া গেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে নিখোঁজ নাবালিকার অভিভাবক দের খবর দেন। মৃত মেয়েটির মা সেখানে পৌঁছে মেয়েটিকে সনাক্ত করে জানান এটি ওনার মেয়ে। সঙ্গে সঙ্গে গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন ধর্মনগরের পুলিশ আধিকারিক রাজিব সুত্রধর। অপরাধীদের সনাক্ত করতে ঘটনা স্থলে আনা হয় ডগ স্কোয়াড। শুরুহয় তদন্ত।বর্তমানে ময়নাতদন্তের জন্য মেয়েটিকে ধর্মনগর জেলা হাসপাতাল নিয়ে আসা হয়। এদিকে ঘটনাস্থল থেকে কিছু দূরেই মেয়েটির পরনের পেন্ট উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাই এস ডি পি ও জানিয়েছেন ধর্ষণের পরে খুন বলেই প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। মৃতার মা গৃহ পরিচারিকা ও বাবা দিনমজুর। মানবরূপি দানবের কু কর্মে পৃথিবী থেকে হারিয়ে গেলো অতি কষ্টে তিলে তিলে বড় হওয়া দুঃস্থ পরিবারের সাত বছর বয়সি ছোট্ট মেয়েটি। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য