About Me

header ads

নির্বাচন কমিশনের স্ক্রুটিনিতে কংগ্রেসের প্রতিনিধিদের ডাকা হয়নি!

এপ্রিল মাসের ১৩ তারিখ সমস্ত দলের প্রতিনিধিদের নিয়ে স্ক্রুটিনি হয়েছে ত্রিপুরা রাজ্য নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে এই তথ্য দেওয়া হয়। কিন্তু এই স্ক্রুটিনিতে কংগ্রেস দলের প্রতিনিধিরা ছিলেন না। কংগ্রেসের অভিযোগ তাদের এ ধরনের কোন স্ক্রুটিনি সম্পর্কে অবগত করা হয়নি। স্ক্রুটিনি এর জন্য ডাকা হয়নি কংগ্রেস দলের প্রতিনিধিদের। নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তুলল ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেস। কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন জানান পুনরায় যেন সমস্ত দলের প্রতিনিধিদের সামনে স্ক্রুটিনি করা হয়। শনিবার প্রদেশ কংগ্রেস কার্যালযয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে এই অভিযোগ তোলেন প্রদেশ কংগ্রেসের সম্পাদক রাহুল সাহা।

প্রসঙ্গত, বিগত ১১ এপ্রিল পশ্চিম ত্রিপুরা আসনে দেদার রিগিং এর অভিযোগে কংগ্রেস প্রথমে ১৫১ বুথে পুনঃভোটের দাবি করেছিল। কিন্তু বিভিন্ন এলাকা থেকে খবর নিয়ে কংগ্রেস গোটা পশ্চিম আসনে আবার ভোটের দাবি জানাচ্ছে বলে জানিয়েছেন তারা। সেইসঙ্গে রাজ্য কংগ্রেস নেতারা দাবি করেছেন অবিলম্বে যেন মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক শ্রীরাম তরণীকান্ত, পশ্চিম আসনের রিটার্নিং অফিসার মিলিন্দ রামটেক, রাজ্য পুলিসের মহা নির্দেশক অখিল কুমার শুক্লা এবং নতুন নিয়োগ হওয়া স্পেশাল ডিজি পুনিত রস্তোগীকে সরানো হয়। এবং তাদের জায়গায় নতুন আধিকারিক নিয়োগ করা হয়। কংগ্রেস নেতৃত্বের বক্তব্য, ডিজি সব কিছু জেনেই ভি এস যাদবের নাম স্পেশাল ডিজি হিসাবে নির্বাচন কমিশনের কাছে প্রস্তাব করেছিল। অথচ ভি এস যাদব অসুস্থতার জন্য ছুটিতে রয়েছেন।