About Me

header ads

প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগে তদন্ত কমিটি গঠন সুপ্রিম কোর্টের!

প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের বিরুদ্ধে  ওঠা যৌন হেনস্থার অভিযোগের প্রেক্ষিতে তিন সদস্যের অভ্যন্তরীন তদন্ত কমিটি গঠন করল সুপ্রিম কোর্ট। কমিটির তিনজন সদস্যই শীর্ষ আদালতের বিচারপতি। তাঁরা অভিযোগটি নিয়ে বিভাগীয় তদন্ত করবেন।

সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তদন্ত কমিটির সদস্যরা হলেন বিচারপতি এস এ বোবদে, বিচারপতি এন ভি রামানা এবং বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁরা আগামী শুক্রবার বিকেল থেকে তদন্তের কাজ শুরু করবেন। শীর্ষ আদালত স্পষ্টভাবে জানিয়েছে, এই তদন্ত কোনওরকম বিচারভাগীয় তদন্ত নয়। বিভাগের অভ্যন্তরীন তদন্ত।

বিচারপতি বোবদে বলেন, “প্রধান বিচারপতি এই বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চেয়েছিলেন। আমাকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আমি বিচারপতি রামানা এবং বন্দ্যোপাধ্যায়কে এই তদন্তে আমার সঙ্গে থাকতে বলেছি। সুপ্রিম কোর্টের বাকি বিচারপতিরাও এই বিষয়ে সহমত পোষণ করেছেন।” তিনি আরও বলেন, “এটি একটি অভ্যন্তরীন বিভাগীয় তদন্ত। অভিযোগকারীকে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের সেক্রেটারি জেনারেলকেও উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। শুক্রবার থেকেই তদন্তের কাজ শুরু হবে।”

প্রসঙ্গত, অভিযুক্ত বিচারপতি গগৈয়ের পরেই শীর্ষ আদালতের সবচেয়ে প্রবীন বিচারপতি হলেন বোবদে। তাঁর পরেই রয়েছেন বিচারপতি রামানা। শীর্ষ আদালতের তিন মহিলা বিচারকের একজন হলেন ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রধান বিচারপতি গগৈ বিচারপতি বোবদকে অভিযোগটির প্রেক্ষিতে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে বলেছেন।

গত শুক্রবার প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ প্রকাশ্যে আসতেই তা নিয়ে শীর্ষ আদালতের বিচারপতিদের মধ্যে মতপার্থক্য তৈরি হয়েছিল। বিচারপতিদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে বিচারপতিদের একাংশ জানান, তাঁরা বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন। তাঁদের মতে, এই ধরনের প্রবণতা বজায় থাকলে যে কোনও কারোর বিরুদ্ধেই মিথ্যা অভিযোগ এনে হেনস্থা করা যেতে পারে। একইসঙ্গে বিচারপতিদের একাংশ সুপ্রিম কোর্টের মতো প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন। প্রসঙ্গত, গত অক্টোবরে বিচারপতি গগৈয়ের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ করেন আদালতে কর্মরত এক মহিলা কর্মী। তিনি দাবি করেন, বিচারপতি গগৈয়ের অশালীন আচরণের প্রতিবাদ করায় তাঁকে চাকরি খোয়াতে হয়। তাঁর স্বামী এবং দেওর দিল্লি পুলিশে কনস্টেবল পদে কর্মরত ছিলেন, তাঁদেরও সাসপেন্ড করা হয়।