About Me

header ads

ভারতের ক্ষতি করছে স্টেট ব্যাঙ্ক অভিযোগ বিজয় মালিয়ার!

ভারতের মানুষের ক্ষতি করছে স্টেট ব্যাঙ্ক। এ অভিযোগ বিজয় মালিয়ার। ব্রিটেনের একটি হাইকোর্ট ভারতে প্রত্যর্পণের রায়ের বিরুদ্ধে আবেদন করার জন্য বিজয় মালিয়ার একটি লিখিত আবেদন খারিজ করে দেওয়ার পর মালিয়া বলেছেন, স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ব্রিটেনে আইনি খাতে বহুল পরিমাণ অর্থ ব্যয় করছে, যে টাকা ভারতীয় করদাতাদের।

টুইটারে বিজয় মালিয়া লিখেছেন, স্টেট ব্যাঙ্কের আইনজীবীরা ব্রিটেনে আমার বিরুদ্ধে তাঁদের সাফল্য নিয়ে প্রেজেন্টেশন দিচ্ছেন। ভারতীয় করদাতারা খরচ পোহাচ্ছেন। খোদ প্রধানমন্ত্রী পুরো অর্থ ফিরে পাওয়া গেছে সে কথা জানানো সত্ত্বেও।
 
এই বিবৃতির সঙ্গে সঙ্গেই ৬৩ বছর বয়সী মালিয়া বেশ কিছু নথিও পোস্ট করেছেন, লিখেছেন, ”স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার ব্রিটেনে ভারতীয় নাগরিকদের অর্থে নিজেদের প্রচার করছেন। এসবিআই-কে এর জবাবদিহি করতেই হবে।”

নিজের বক্তব্যের সমর্থনে পলাতক এই ব্যবসায়ী বলেছেন, ব্রিটেনে তাঁর সম্পত্তি বিক্রি করা হয়েছে, যার অর্থমূল্য মূলের ৫০ শতাংশ। বাকি সম্পত্তি, যা এখনও বিক্রি হয়নি, তা বিক্রি করা হলেও আইনি খরচ উঠবে না বলে দাবি করে মালিয়া এ ব্যাপারে এসবিআই-য়ের জবাবদিহি দাবি করেছেন।

ভারত সরকারকে তিনি যে পুরো ১০০ শতাংশ টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন সে কথা আরও একবার উল্লেখ করে মালিয়া বলেছেন, ”মিডিয়া উত্তেজক হেডলাইন পছন্দ করে, কিন্তু কেন কোনও একজনও তথ্যের অধিকার আইনে স্টেট ব্যাঙ্কের কাছে জানতে চাইছে না যে আমার কাছ থেকে টাকা উদ্ধার করার জন্য ব্রিটেনে আইনি খাতে কত টাকা খরচ করা হয়েছে, যখন আমিই পুরো টাকা ফেরত দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম!”

বৃহস্পতিবার লিকার ব্যারন মালিয়া দাবি করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন যে তাঁর সরকার রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে মালিয়ার কাছ থেকে যত টাকা পেত তার চেয়ে বেশি পরিমাণ অর্থ উদ্ধার করা হয়েছে। অন্যদিকে সেই ব্যাঙ্কগুলিই ব্রিটেনের আদালতে অন্য কথা বলছে। মালিয়ার প্রশ্ন, কাকে বিশ্বাস করা হবে! কেউ একজন মিথ্যে বলছে।

মালিয়ার বিরুদ্ধে প্রতারণা, জালিয়াতি, অর্থ নয়ছয় এবং ঋণের অর্থ ভিন্ন খাতে ব্যয় করার অভিযোগ রয়েছে।