About Me

header ads

গুজরাত দাঙ্গায় নিগৃহীতা বিলকিসকে ৫০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ!

২০০২ এর গুজরাত দাঙ্গার প্রেক্ষাপটে গণধর্ষিতা বিলকিস বানোকে  ৫০ লক্ষের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিল দেশের শীর্ষ আদালত। দু’সপ্তাহের মধ্যে ৫০ লক্ষ টাকার  ক্ষতিপূরণ দিতে হবে গুজরাত সরকারকে। শীর্ষ আদালত গুজরাত সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে সরকারি চাকরি এবং সরকারি বাসস্থান দিতে হবে বিলকিস বানোকে।

দাঙ্গা বিধ্বস্ত গুজরাতে বিলকিস বানোকে গণধর্ষণ এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদের হত্যার দায়ে অভিযুক্ত ১১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা দিয়েছিল বম্বে হাইকোর্ট।

গোধরা হিংসায় তখন জ্বলছে সারা গুজরাত। নিজের পরিবারের সঙ্গে ট্রাকে করে বাড়ি ফিরছিলেন ১৯ বছরের বিলকিস বানো। সঙ্গে ২ বছরের মেয়েকে নিয়ে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে ছিলেন পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা বিলকিস। পথে ট্রাক থামিয়ে সশস্ত্র দুষ্কৃতির দল বিলকিস কে ধর্ষণ করে পরিবারের ১৪ জন সদস্যকে হত্যা করে।

২০০২ সালের গুজরাত দাঙ্গার সবচেয়ে নৃশংস এবং পরবর্তী কালে সবচেয়ে আলোচ্য ঘটনা ছিল বিলকিস বানোর ঘটনা। প্রসঙ্গত, গুজরাতে তখন মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন দেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ধর্ষণ এবং পরিবারের সদস্যদের হত্যার অভিযোগ নিয়ে স্থানীয় থানায় গেলে সেখানে অভিযোগ নথিভুক্ত করা হলই না, উল্টে থানা থেকেই হুমকি হল, এই ঘটনা নিয়ে আর হৈ চৈ করলে ফল ভাল হবে না। হুমকিতে দমে না গিয়ে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনে ঘটনাটি জানান বিলকিস। আবেদন করেন শীর্ষ আদালতে। সিবিআইকে ঘটনার তদন্তের ভার দেয় সুপ্রিম কোর্ট। তদন্ত চলাকালীন একাধিক বার হুমকি আসায় মামলা গুজরাত থেকে সরিয়ে মহারাষ্ট্রে নিয়ে যেতে বাধ্য হন বিলকিস বানো।