About Me

header ads

বিজেপি নির্বাচনে হিংসা ছড়িয়েছে অভিযোগ ত্রিপুরার শরিক দলের!

সিপিআই (এম) , কংগ্রেসের তরফে অভিযোগ আসছিল অনেক দিন ধরেই। এবার অভিযোগ এল বিজেপির শরিক দল আইপিএফটি-র কাছ থেকেই। ইন্ডিজেনাস পিপলস ফ্রন্ট অব ত্রিপুরা (আইপিএফটি) বুধবার অভিযোগ করেছে, ১১ এপ্রিল পশ্চিম ত্রিপুরার লোকসভা কেন্দ্রে সত্যিই হিংসা ছড়িয়েছিল গেরুয়া দল।

আইপিএফটি এবং বিজেপি জোট ৬০ টির মধ্যে ৪৪টি আসনে জিতে ক্ষমতায় এসেছে গত বছরের বিধানসভা ভোটে। নির্বাচনী হিংসা ছড়ানোর জন্য বিজেপিকে দায়ি করে আইপিএফটি বুধবার ঢালাইয়ের গাঁদাচেরা জেলায় পথ অবরোধ করে।

আইপিএফটি মুখপাত্র মঙ্গল দেববর্মণ জানিয়েছেন, “কংগ্রেস এবং আইপিএফটি কর্মীদের রাইমাভ্যালি বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপির গুণ্ডারা হামলা করেছে। ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ করে আমাদের কর্মীকে আক্রমণ করেছিল ওরা। আহতরা বরতমানে মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন”।

এর আগে ১১ তারিখের ঘটনা নিয়ে ত্রিপুরা কংগ্রেস এবং সিপিআইএম এর তরফে বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ আসায় নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তে নিরাপত্তার কারণে পিছিয়ে যায় দ্বিতীয় দফার ভোট।

আইপিএফটি-র পক্ষ থেকে হামলা নিয়ে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। পরবর্তী পদক্ষেপ আলচনা করার জন্য ২৬ এপ্রিল আগরতলায় একটি বৈঠক ডেকেছে দল।

পথ অবরধ প্রসঙ্গে গাঁদাচেরা থানার দায়িত্বে থাকা টি উচই সাংবাদিকদের বলেছেন বেলা ২ টো থেকে পথ অবরোধ চলছে।

“গত রাতে বিজেপির সমর্থকরাও পথ অবরোধ করেছিল। দু’দলের মধ্যে আলোচনা চলছে। আমরা এখন শুধুই আইন শৃঙ্খলা রক্ষা করছি। বিষয়টি রাজনৈতিক হওয়ার দরুন রাজনৈতিক নেতারাই আলোচনা করছেন”, জানালেন পুলিশ আধিকারিক।

বিজেপি মুখপাত্র ডঃ অশোক সিনহা অবশ্য জানিয়েছেন আইপিএফটির অভিযোগ ‘ভিত্তিহীন’।