About Me

header ads

“এয়ার স্ট্রাইকে পাকিস্তানের চেয়ে অনেক বেশি সফল ভারত”

বালাকোটে এয়ার স্ট্রাইক করে আমরা সফল হয়েছি। কিন্তু পাকিস্তান যা চেয়েছে, তা পারেনি। ওরাও এয়ার স্ট্রাইকের পর পালটা আক্রমণ করেছিল। হ্যাঁ, আমরা একটা যুদ্ধবিমান খুইয়ে ফেলেছি, একজন যুদ্ধবিমানচালককে বন্দি করে রাখা হয়েছিল, এসব সত্যি। কিন্তু ওরা সফল হয়নি”, বললেন ভারতের বায়ুসেনা প্রধান বি এস ধানোয়া।সোমবার এক অনুষ্ঠানের মঞ্চে ধানোয়া বলেন, “আমরা হামলা করার পরের দিনই ওরা পাল্টা হামলা করেছিল। কিন্তু ওদের কার্য সিদ্ধি হয়েছে কি? একটাই উত্তর, ‘না'”। বললেন মুখ্য এয়ার মার্শাল। “আমাদের মিগ ২১ বাইসন যুদ্ধবিমান খোয়া গেছে ঠিকই। কিন্তু তার বদলে এফ-১৬ বিমান পেয়ে গিয়েছি আমরা”।

“দু’দেশের মধ্যে হামলায় আমরাই সাফল্য পেয়েছি। কারণ আমাদের কাছে মিগ ২১ , মিরেজ ২০০০  ছিল। এই সমিয়ে রাফাল যুদ্ধবিমান কাজে লাগাতে পারলে পরিস্থিতি আরও বেশি করে আমাদের পক্ষে যেত”, বললেন এয়ার মার্শাল ধোনিয়া।

তবে দেশের বায়ুসেনার কৃতিত্বের বিবরণ দেওয়ার মাঝেই তিনি উল্লেখ করলেন বেশ কিছু ক্ষেত্রে আধুনিক প্রযুক্তির অভাব রয়েছে বায়ুসেনাতে।

২০৩০ এর মধ্যে মোট যুদ্ধবিমানের ৫৫ শতাংশই তৈরি হবে দেশেই, বারবার জোর দিয়ে বললেন বায়ুসেনা প্রধান। ২০৪০-এর মধ্যে পঞ্চম প্রজন্মের  যুদ্ধবিমানের নকশা তৈরি করা থেকে ভারতীয় প্রযুক্তির সাহায্যে বিমান আকাশে ওড়ার পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করার জন্য দেশকে তৈরি হওয়ার ডাক দিলেন বি এস ধোনিয়া।