About Me

header ads

জম্মু কাশ্মীর লিবারেশন ফ্রন্ট নিষিদ্ধ ঘোষিত!

ইয়াসিন মলিকের নেতৃত্বাধীন জম্মু কাশ্মীর লিবারেশন ফ্রন্ট নিষিদ্ধ করল কেন্দ্র। সন্ত্রাসবিরোধী আইনের আওতায় শুক্রবার এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। জন নিরাপত্তা আইনে গত ২২ ফেব্রুয়ারি গ্রেফতার করা হয়েছিল ইয়াসিন মালিককে। বর্তমানে তিনি জম্মুর কট বালওয়াল জেলে রয়েছেন।

দেশের বিদেশ সচিব রাজীব গৌবা সাংবাদিকদের বলেছেন, “কেন্দ্রীয় সরকার আজ জেকেএলএফ-কে ১৯৬৭ সালের ইউএপিএর আওতায় নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে আমাদের জিরো টলারেন্স নীতির ভিত্তিতেই এই পদক্ষেপ করা হয়েছে।”

সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, আধিকারিকরা বলছেন জম্মু কাশ্মীরে বিচ্ছিন্নতাবাদী কার্যকলাপ বাড়িয়ে তোলার জন্যই জেকেএলএফ-কে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ইউএপিএ-র তিন নং ধারানুসারে এই নিষিদ্ধি বলে জানিয়েছেন তাঁরা।

এ মাসে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার জম্মু কাশ্মীরে কোনও সংগঠন নিষিদ্ধ করা হল। এর আগে জম্মু কাশ্মীর জামাত -এ ইসলামিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

জেকেএলএফ-কে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার সিদ্ধান্তকে কেন্দ্র করে সরকারকে এক হাত নিয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। তিনি বলেন, “দীর্ঘদিন আগেই হিংসার পথ ছেড়ে দিয়েছেন ইয়াসিন মালিক। প্রধানমন্ত্রী বাজপেয়ীজি যখন আলোচনা প্রক্রিয়া শুরু করেছিলেন তখন ইয়াসিন মালিককে একটি পক্ষ হিসেবে ধরা হয়েছিল। এই সংগঠন নিষিদ্ধ করার মাধ্যমে কী পাওয়া যাবে?  এ ধরনের ক্ষতিকর পদ্ধতি গ্রহণের মাধ্যমে কাশ্মীর এক খোলা জেলে পরিণত হবে মাত্র।”