About Me

header ads

রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ, রিপোর্ট তলব সুপ্রিম কোর্টের!

রাজীব কুমার ইস্যুতে সিবিআইয়ের আদালত অবমাননার মামলায় নয়া মোড়। সুপ্রিম কোর্টে রিপোর্ট পেশ করল সিবিআই। কলকাতার প্রাক্তন নগরপাল রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ জানিয়ে আদালতে রিপোর্ট পেশ করেছে সিবিআই। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্টের প্রেক্ষিতে ১০ দিনের মধ্যে জবাব দিতে হবে কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে। মঙ্গলবার এমনই নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। এদিন মুখবন্ধ খামে (সিল করা) আদালতে রিপোর্ট পেশ করে সিবিআই।

উল্লেখ্য, এর আগে সুপ্রিম কোর্টে একটি হলফনামা জমা দিয়ে সিবিআইয়ের তরফে জানানো হয়, সারদা মামলা সংক্রান্ত নথিপত্রে কিছু “অসঙ্গতি” রয়েছে যা তারা খতিয়ে দেখছে। কিন্তু হলফনামায় রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে তথ্য লোপাট বা নষ্ট করার অভিযোগের উল্লেখ ছিল না, যার জেরে ফেব্রুয়ারি মাসের গোড়ার দিকে নগরপালের বাসভবনে তাঁকে “জিজ্ঞাসাবাদ” করতে হাজির হয় সিবিআই-এর একটি দল। প্রসঙ্গত, সুপ্রিম কোর্ট রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে তথ্য লোপাটের প্রমাণ দিয়ে হলফনামা জমা দিতে সিবিআই ডিরেক্টর ঋষি কুমার শুক্লাকে নির্দেশ দিয়েছিল শীর্ষ আদালত।

এর আগে সারদাকাণ্ডের তদন্তে কলকাতার তৎকালীন নগরপাল রাজীব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে সটান তাঁর বাড়িতে হানা দেয় সিবিআইয়ের একটি দল। যা ঘিরে উত্তাল হয় রাজ্য রাজনীতি। এরপরই আদালতের দ্বারস্থ হয় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। সেই মামলায় সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে গত ফেব্রুয়ারি মাসে শিলংয়ে টানা পাঁচদিন ধরে রাজীব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। জিজ্ঞাসাবাদ পর্বে রাজীবের জন্য একগুচ্ছ প্রশ্নমালা সাজান তদন্তকারী আধিকারিকরা। দু’দিন রাজীব কুমারের সঙ্গে তৃণমূলের প্রাক্তন সাংসদ কুণাল ঘোষকে মুখোমুখি বসিয়েও জিজ্ঞাসাবাদ চালানো হয়। রাজীবকে জিজ্ঞাসাবাদ পর্বে বেশ কিছু তথ্য তদন্তকারীদের হাতে এসেছে বলে জানা যায়।