About Me

header ads

লন্ডনে শীঘ্রই গ্রেফতার করা হতে পারে নীরব মোদীকে!

ক’দিন আগেই লন্ডনের রাস্তায় ফুরফুরে মেজাজে দেখা গিয়েছিল নীরব মোদীকে। সেই লন্ডনেই এবার গ্রেফতার করা হতে পারে পলাতক এই হীরে ব্যবসায়ীকে। ইতিমধ্যেই লন্ডনের আদালতে নীরবের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। শীঘ্রই তাঁকে গ্রেফতার করা হবে বলে ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে। গত বছরের শুরুতে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কে কয়েক হাজার কোটি টাকার কেলেঙ্কারিতে অন্যতম মূল অভিযুক্ত নীরব। পিএনবি কেলেঙ্কারি সামনে আসার কিছুদিন আগেই দেশ ছেড়ে পালান নীরব। পরে জানা যায় লন্ডনেই রয়েছেন এই হীরে ব্যবসায়ী।

ইডি সূত্রে খবর, লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নীরবের বিরুদ্ধে কয়েকদিন আগে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। নীরবের প্রত্যর্পণের আবেদনে সম্মতি জানিয়েছে আদালত। এরপরই নীরবের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। এ প্রসঙ্গে এক ইডি আধিকারিক জানিয়েছেন, “নীরব মোদীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করার কথা আমাদের জানানো হয়েছে। নীরবের প্রত্যর্পণের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।” ইডি সূত্রে আরও জানা যাচ্ছে, নীরব মোদীকে গ্রেফতার করার পর শর্তসাপেক্ষে জামিন দেওয়া হবে। এই শর্তে জামিন দেওয়া হবে যে, উনি দেশ ছাড়তে পারবেন না।

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই লন্ডনের রাস্তায় দেখা গিয়েছিল নীরব মোদীকে। ব্রিটেনের সংবাদমাধ্যম ‘দ্য টেলিগ্রাফ’-এর প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, লন্ডনে বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্টে বহাল তবিয়তেই রয়েছেন নীরব। এমনকি, সেখানেও হীরের ব্যবসা চালাচ্ছেন তিনি। ওই সংবাদমাধ্যমের একটি ভিডিওতে নীরবকে দেখা যায়। যে ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল পড়ে যায় এ দেশে।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে মুম্বইয়ের বিশেষ আদালতে নীরব মোদীর স্ত্রী অ্যামি মোদীর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছিল।

নীরবকে হাতের নাগালে পেতে চেষ্টার কোনো কসুর করেন নি তদন্তকারীরা। কিন্তু কোনওভাবেই নীরবের নাগাল পাননি গোয়েন্দারা। অন্যদিকে, পিএনবি কেলেঙ্কারিতে আরেক অভিযুক্ত নীরবের মামা মেহুল চোকসিও পলাতক। ওয়েস্ট ইন্ডিজের অ্যান্টিগা ও বাবুর্দায় রয়েছেন মেহুল।