About Me

header ads

অরুণাচলের নাম না থাকায় ৩০ হাজার ম্যাপ নষ্ট করে দিল চিন!

অরুণাচল প্রদেশ ও তাইওয়ানের চিনের অন্তর্ভুক্ত হিসেবে না দেখানোয় ৩০ হাজার ম্যাপ নষ্ট করে দিল সে দেশের শুল্ক বিভাগ। একটি সংবাদমাধ্যমে এ খবর প্রকাশিত হয়েছে।

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্য অরুণাচল প্রদেশ দক্ষিণ তিব্বতের অন্তর্ভুক্ত বলে দীর্ঘ দিন ধরে দাবি করে আসছে চিন। এ প্রসঙ্গে নিজেদের অবস্থান দৃঢ় করতে ভারতের বিভিন্ন নেতাদের অরুণাচল প্রদেশ সফর নিয়েও চিন আপত্তি তুলে আসছে দীর্ঘদিন ধরেই। ভারতের দাবি অরুণাচল প্রদেশ ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ। এ দেশের নেতারা দেশের অন্য়ান্য জায়গার মতোই সময়ে সময়ে অরুণাচল প্রদেশ সফরে গিয়ে থাকেন।

সীমান্তের ৩৪৮৮ কিলোমিটার দীর্ঘ প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা নিয়ে সমস্যা সমাধান করতে দু দেশের মধ্যে এখনও পর্যন্ত ২১ বার বৈঠক হয়েছে। বিচ্ছিন্ন দ্বীপ তাইওয়ানকেও নিজেদের অংশ হিসেবে দাবি করে চিন।

চিনের সরকারি সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমসে মঙ্গলবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানা গিয়েছে, এই ম্যাপগুলি বিদেশে রফতানির উদ্দেশ্যে ছাপানো হয়েছিল। তবে কোন দেশে ম্যাপগুলি রফতানি করা হত, সে বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।

সংবাদপত্রের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রায় ৩০,০০০ ভুল মানচিত্র, যেগুলিতে তাইওয়ানকে আলাদা দেশ হিসেবে দেখানো হয়েছে এবং চিন-ভারত সীমান্তের ভুল চিত্র প্রদর্শিত হয়েছে, কুইংডাও-য়ের শুল্ক কর্তৃপক্ষ সেগুলি নষ্ট করে দিয়েছে।

চিনের বিদেশ বিষয়ক বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক আইনে বিভাগের অধ্যাপক লিউ ওয়েনজং বলেছেন, “মানচিত্র নিয়ে চিন যা করেছে তা যথাযথ এবং প্রয়োজনীয়, কারণ সার্বভোমত্ব এবং এলাকার অখণ্ডতা বজায় রাখা দেশের পক্ষে সবচেয়ে জরুরি। তাইওয়ান এবং দক্ষিণ তিব্বত আন্তর্জাতিক আইনানুসারে চিনের অঙ্গ হিসেবে পবিত্র এবং অলঙ্ঘনীয়।”