About Me

header ads

বুলন্দশহর কাণ্ডে ৩৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট গঠন!

বুলন্দশহরে পুলিশ ইনস্পেক্টর সুবোধ কুমার সিংয়ের খুনের ঘটনায় ৩৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট পেশ হল চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে।

বুলন্দশহরের এসপি অতুল কুমার শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, “সিয়ানার এসএইচও সুবোধ কুমার সিংয়ের হত্যায় ৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট পেশ করা হয়েছে। বাকি ৩৩ জনের বিরুদ্ধে দাঙ্গা লাগানোর অভিযোগ রয়েছে”। আগামী মঙ্গলবার শুনানির পরবর্তী দিন ধার্য হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে মূল অভিযুক্ত যোগেশ রাজ গোহত্যাকে ঘিরে বুলন্দশহরের চিঙরাবতীতে দাঙ্গা লাগিয়েছিলেন এবং উপস্থিত জনতাকে উস্কেছিলেন।

“অভিযুক্ত প্রশান্ত নট, লোকেন্দ্র, রাহুল, ডেভিড এবং জনির বিরুদ্ধে পুলিশ আধিকারিকের হত্যার অভিযোগ রয়েছে। সিসিটিভি ফুটেজ, সোশাল মিডিয়ায় একাধিক ভিডিওতে দেখা গিয়েছে এই পাঁচজন পুলিশ আধিকারিককে গোল করে ঘিরে ধরেছিল। গুলি চালায় প্রশান্ত। জিজ্ঞাসাবাদের সময় তাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ স্বীকার করে  নেয় পাঁচজনই।

তদন্তের সময় আরও এক জনের নাম উঠে এসেছিল। সেই অভিযুক্তের খোঁজ করছে পুলিশ। পুলিশের দাবি, বিগত কয়েক সপ্তাহে তদন্ত চলাকালীন অনেকেই পুলিশের কাছে এসে আত্মসমর্পণ করেছে। এদের মধ্যে রয়েছে মাহা গ্রামের প্রাক্তন প্রধান রাজকুমারও।

বুলন্দশহর পুলিশ বলছে, যোগেশ রাজ স্থানীয় বজরং দল শাখার জেলা সংযোজক। সে এখন ফেরার। পুলিশ এ ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে, আটক করা হয়েছে আরও বেশ কয়েকজনকে।

এফআইআরে যে ২৭ জনের নাম রয়েছে, তাদের মধ্যে ৯ জন অন্তত দশম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশুনো করেছে এবং এদের প্রায় সকলেই পেশায় কৃষক।

৯ জনের মধ্যে ৭ জনের পরিবার জানিয়েছে, তাদের সঙ্গে কোনও রাজনৈতিক দলের সম্পর্ক নেই। তবে কথা বলার সময়ে সকলেই গরু পাচারের প্রসঙ্গ উঠলেই বেজায় ক্ষিপ্ত হয়ে পড়েছে।

অভিযুক্তরা সকলেই সিয়ানার কাছাকাছি তিনটি গ্রামের বাসিন্দা, এবং এদের মধ্যে অধিকাংশই জাঠ। শুধু নয়াবাস গ্রামের  অভিযুক্ত লোধ রাজপুত সম্প্রদায়ের।